অনেকদিন পর দেখা, কী খবর ‘পাগলা’?

২১ জানুয়ারি ২০২৪

অনেকদিন পর দেখা, কী খবর ‘পাগলা’?

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে রোববার অনুশীলন করছিলেন ফরচুন বরিশালের ক্রিকেটাররা। একটু পর সেখানে উপস্থিত সিলেট স্ট্রাইকার্স অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। চকিতে দেখতে পান বরিশালের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর ডেভ হোয়াটমোরকে। সাথে সাথেই টুপি দিয়ে মুখ ঢেকে এগিয়ে যান ডেভের দিকে। অস্ট্রেলিয়ান এই ক্রিকেট কোচ মাশরাফিকে দেখেই লাফিয়ে ওঠেন! কতদিন পর দেখা জড়িয়ে ধরেন বুকে। সেই আলিঙ্গন যেন আর শেষ হয় না।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের জনপ্রিয় কোচদের একজন ডেভ হোয়াটমোর। তার আমলেই বাংলাদেশ দল জিততে শিখেছিল। তখন মাশরাফি ছিলেন তরুণ ক্রিকেটার। হাসি, মজা আর দুষ্টুমিতে মাতিয়ে রাখতেন সবাইকে। বেশি দুষ্টুমি করতেন বলে ডেভ হোয়াটমোর তার নাম দেন পাগলা। ওই সময় জাতীয় দলের অনেকেই মাশরাফিকে পাগলা বলেই ডাকত। ২০০৩ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্বে থাকা হোয়াটমোর হয়তো একটু বেশিই স্নেহ করতেন মাশরাফিকে। এত বছর পরও তাদের সেই বন্ধন অটুট আছে।

হোয়াটমোরের বয়স এখন সত্তর ছুঁইছুঁই। অন্যদিকে মাশরাফিও চল্লিশ ছুঁয়ে ফেলেছেন। মিরপুরে দুজনকে অনেকটা সময় গল্প করতে দেখা গেল আজ। হয়তো পুরনো স্মৃতিচারণ করলেন, খোঁজ নিলেন সবার। এর আগে গত শনিবার হোয়াটমোর খোঁজ নিয়েছিলেন সড়ক দুর্ঘটনায় প্রয়াত ক্রিকেটার মানজারুল ইসলাম রানার পরিবারের। তিনি রানার বাড়িতে যাওয়ার ইচ্ছাও জানিয়েছেন। হোয়াটমোর কোচ থাকাকালীন সময়েই ভয়াবহ মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছিলেন মানজারুল।

মন্তব্য করুন:

সর্বাধিক পঠিত
Add