শোয়েবের ‘ফিক্সিং’ নিয়ে বরিশাল মালিকের সুর বদল

২৬ জানুয়ারি ২০২৪

শোয়েবের ‘ফিক্সিং’ নিয়ে বরিশাল মালিকের সুর বদল

চব্বিশ ঘণ্টা কেটে যাওয়ার আগেই সুর বদলে ফেললেন ফরচুন বরিশালের মালিক মিজানুর রহমান। ভিডিওবার্তায় দাবি করলেন, তিনি বিপিএল-২০২৪ এর একটি ম্যাচে শোয়েব মালিকের আলোচিত তিনটি নো বলের ইস্যুতে কিছু বলেননি! অথচ, অলআউট স্পোর্টস-এর হাতে আছে মিজানুর রহমানের বক্তব্যের রেকর্ড। যাতে তিনি শোয়েব মালিকের সেই তিনটি নো বলের বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। সেইসঙ্গে তদন্তের আহবানও জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন : ‘ফিক্সিং’ সন্দেহেই শোয়েব মালিকের বিপিএল শেষ

গত ২২ জানুয়ারি সোমবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খুলনা টাইগার্সের মুখোমুখি হয়েছিল ফরচুন বরিশাল। সেই ম্যাচে খুলনার ইনিংসের চতুর্থ ওভারে শোয়েব মালিক তিনটি বড় বড় নো বল করেন! প্রশ্ন ওঠে যে- একজন অফস্পিনার কীভাবে একই ওভারে তিনটি নো বল করতে পারেন? ওভারটিতে তিনটি নো বল সহ দুই চার ও এক ছক্কায় ১৮ রান দেন মালিক। অধিনায়ক তামিম ইকবাল তাকে দিয়ে আর বোলিং করাননি। মূলতঃ ওই ওভারেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় খুলনা। শেষ পর্যন্ত ১৮৭ রান টপকে তারা জিতে যায় ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে।

খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে শোয়েব মালিকের সেই তিন `নো বলের` ওভার। -ইএসপিএনক্রিকইনফো

বিষয়টি নিয়ে সেদিন থেকেই তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ফরচুন বরিশালের পরবর্তী ম্যাচেও শোয়েবকে দিয়ে বোলিং করাননি তামিম। এরপর বিপিএলের ঢাকা পর্ব শেষে হুট করেই শোয়েব মালিক দুবাই চলে যান। পরে গত ২৫ জানুয়ারি বরিশাল ফ্র্যাঞ্চাইজি জানায়, শোয়েব আসরের বাকি অংশে আর খেলবেন না। এ বিষয়ে বরিশাল মালিক নট আউট নোমান’ -কে বলেন, শোয়েব মালিকের সাথে আমাদের ১৪ তারিখ পর্যন্ত কথা ছিল। কিন্তু সে দুবাই গিয়ে বলতেছে- ভাই, আমি ৬ তারিখে আসতে পারি কিনা? আমি বলছি- না ভাই, ৬ তারিখে আসলে হবে না। ও নতুন বিয়ে করেছে, সেখানে ফ্যামিলি আসছে, ওখানে গেছে।

শোয়েব মালিকের সেই বিতর্কিত ওভারের একটি নো বলের দৃশ্য। ছবি : টুইটার

শুধু তাই নয়, শোয়েবের সেই তিনটি নো বলের বিষয়েও কথা বলেছেন বরিশালের মালিক। বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, খুলনার বিপক্ষে সেই নো বলের ঘটনায় ইতোমধ্যেই খোঁজ খবর শুরু করে দিয়েছে আইসিসির দুর্নীতি দমন কমিশন (আকসু)। বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক সাবেক ক্রিকেটার রকিবুল হাসান বলেছেন,  বিষয়টি নিয়ে বিসিবির স্বাধীন দুর্নীতি দমন ইউনিট চাইলে তদন্ত করতে পারে। এ বিষয়ে বরিশালের মালিক মিজানুর চ্যানেল টোয়েন্টি ফোর-কে বলেছেন, করা উচিৎ (তদন্ত)। যদি করে তাহলে খুব ভালো হয়। একজন অফ স্পিনার এক ওভারে তিনটা নো বল করবে- এটা আমার কাছে রিয়েলি অ্যাবসার্ট লাগছে। ওই ইয়েতেই (ওভারেই) আমরা কিন্তু ম্যাচ হেরে গেছি।

শোয়েব মালিকের তৃতীয় স্ত্রী অভিনেত্রী সানা জাভেদ। মিজানুর রহমানের বক্তব্য অনুযায়ী, স্ত্রীর সঙ্গে সময় কাটাতেই দুবাই যান শোয়েব। ছবি : টুইটার

অথচ ২৬ জানুয়ারি শুক্রবার এক ভিডিওবার্তায় বরিশালের মালিক দাবি করেন, তিনি এসবের কিছুই বলেননি, গত কয়েকদিন ধরেই আমরা শোয়েব মালিককে নিয়ে কিছু কথাবার্তা শুনতেছি। আমি ওটার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। শোয়েব মালিক একজন ভালো প্লেয়ার। সে আমাদের তার সর্বোচ্চটাই দিয়েছে। আমরা আর এটা নিয়ে আলোচনা না করি। আমাদের উচিৎ পরবর্তী ম্যাচে মনযোগ দেওয়া।

এদিকে শুক্রবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্স-এ বরিশাল মালিকের একটি ভিডিও শেয়ার করেন শোয়েব মালিক। সেই ভিডিওতেও বরিশালের মালিক মিজানুর নিজের পূর্বের বক্তব্য অস্বীকার করেন, শোয়েব মালিককে নিয়ে বেশ ধোঁয়াশা হচ্ছে কয়েকদিন যাবতই। এটা টোটালি আসলে ভুল একটা তথ্য। আমরা কোনো নিউজ চ্যানেলকে কোনো ইনফরমেশন দেইনি। খেলতে গিয়ে হারজিত হতেই পারে, এটা ডিফারেন্ট স্টোরি। শোয়েব মালিক তার সর্বোচ্চটাই দিয়েছে। আমরা কোনো অভিযোগও করিনি বা তার (শোয়েব) সঙ্গে কথাও বলিনি। আজ এসে অনেক মিডিয়া আমাকে ফোন করছে, যেটা আমার কাছে ভালো লাগছে না। শোয়েব মালিকের বিরুদ্ধে আমাদের কোনো অভিযোগ নেই। তাই প্লিজ এটাকে বড় করার চেষ্টা করবেন না।

ভিডিওবার্তায় সব অস্বীকার করেন ফরচুন বরিশালের মালিক মিজানুর রহমান। - ফেসবুক

এদিকে শোয়েব মালিক এক্স-এ দেওয়া পোস্টে দাবি করেছেন, তিনি পূর্ব নির্ধারিত মিডিয়া সংশ্লিষ্ট একটি কাজে দুবাই গিয়েছেন। সেইসঙ্গে তিনি ফরচুন বরিশালের জন্য শুভকামনাও জানান। তবে অফস্পিনার হয়েও এক ওভারে কীভাবে তিনটি নো বল করলেন- সে বিষয়ে কিছুই বললেনি শোয়েব।

 

 

মন্তব্য করুন:

সর্বাধিক পঠিত
Add